Ebong Alap / এবং আলাপ
 

সুন্দরবনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস

(March 23, 2018)
 

প্রতি বছরের মত গত ১৬ মার্চ ২০১৮ দক্ষিণ ২৪ পরগণার বালি দ্বীপে এবং আলাপ ও সুন্দরবন বিজয়নগর দিশার যৌথ উদ্যোগে উদযাপন করা হলো আন্তর্জাতিক নারী দিবস। বালি নিম্ন বুনিয়াদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় স্কুল ছাত্রছাত্রী, গৃহবধূ, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্য, স্কুল শিক্ষক শিক্ষিকা, শিক্ষাকর্মী, সিভিক ভলান্টিয়ার ও অন্যান্য পেশার মানুষ। এ বছর বিশেষ অতিথি হিসাবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য মহিলা কমিশনের সভানেত্রী লীনা গঙ্গোপাধ্যায় ও আরও দু’ জন সদস্যা, রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের সভানেত্রী অনন্যা চক্রবর্তী, বিশিষ্ট সাংবাদিক স্বাতী ভট্টাচার্য, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান, পুলিশ আধিকারিক।

এবছর আন্তর্জাতিক নারী দিবসে প্রথম ‘এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান’ প্রদান করা হলো পাঁচজন এমন মানুষকে, যাঁরা সমাজের তৃণমূলস্তরে বিভিন্নভাবে লিঙ্গসাম্য প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন।

এবছর লিঙ্গসাম্য সম্মান পেলেন উত্তর ২৪ পরগণার হিঙ্গলগঞ্জের কনকনগর এস.ডি. ইন্সটিটিউশনের ফুটবল প্রশিক্ষক রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল, যিনি বিনা পারিশ্রমিকে স্কুলের মেয়েদের ফুটবল প্রশিক্ষণ দিয়ে চলেছেন, এবং তাঁর এই উদ্যোগের ফলে স্কুলের দুই ছাত্রী রাজ্য স্তরেও খেলার সুযোগ পেয়েছে।

অ্যাসিড আক্রমণ ও বিভিন্ন ধরনের যৌন হিংসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদী মুখ হয়ে ওঠা মনীষা পৈলানকে সম্বর্ধিত করা হলো ‘এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মানে’। অ্যাসিড আক্রমণের পর পিছিয়ে না এসে সোচ্চারে প্রতিবাদ করে অন্য মেয়েদের সাহস জোগানোর মনের জোর কীভাবে পেলেন মনীষা, প্রত্যাবিভাষণে জানালেন উপস্থিত শ্রোতাদের।

পশ্চিমবঙ্গে আশির দশকে একাধিক বধূহত্যার ঘটনা ও তা থেকে যৌথ আন্দোলনের মধ্যে থেকে উদ্ভূত নারী নির্যাতন প্রতিরোধ মঞ্চের পুরোভাগে ছিলেন যিনি, সেই কৃষ্ণা রায় গত দু’ দশক ধরে যুক্ত থেকেছেন মেয়েদের সশক্তিকরণের কাজে। বহু ট্রেনিং, ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেছেন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। লিঙ্গ সাম্যের লক্ষ্যে এই অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ কৃষ্ণা রায়কে সম্মানিত করা হল ‘এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মানে’।

‘এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মানের আরেক প্রাপক মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা দেবকুন্ডা এস. এ. আর. এম. হাই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষিকা মুরশিদা খাতুন ছোটবেলায় নিজে পড়াশুনা করার জন্য যে লড়াই শুরু করেছিলেন, তা আজও চালিয়ে যাচ্ছেন, ছাত্রীদের জন্য। সমাজের রক্ষণশীল অংশের রক্তচক্ষু, প্রশাসনের উদাসীনতাকে কাটিয়ে উঠে, মেয়েদের পড়াশুনার পাশাপাশি খেলাধুলা, কারিগরি শিক্ষা ইত্যাদির নানাবিধ উদ্যোগ নিয়ে চলেছেন মুরশিদা খাতুন।

বিগত ৪১ বছর ধরে সুন্দরবনের মেয়েদের স্বনির্ভরতার অন্যতম স্তম্ভ রাঙ্গাবেলিয়া মহিলা সমিতিকে ‘এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মানে’ ভূষিত করা হয়। রাঙাবেলিয়া মহিলা সমিতির পক্ষ থেকে এই সম্মান গ্রহণ করেন সমিতির সম্পাদক প্রতিমা মিশ্র।

এই অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পরিবেশনার অংশরূপে আবৃত্তি করে স্কুল ও কলেজের ছাত্রীরা। নৃত্য পরিবেশন করেন  স্থানীয় দিগ্বিজয়ী সংঘের পাঁচজন সদস্যা, যাঁরা সকলেই গৃহবধূ। সুন্দরবন বিজয়নগর দিশার সভাপতি সুকুমার পয়রার লেখা নাটক ‘নতুন ভাবনায় চলব বলে’ অভিনীত হয়। অংশ নেন দিশার সদস্য সদস্যারা। মাত্র এক সপ্তাহের মহলার ফলশ্রুতি এই নাটকে বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে তুলে ধরা হয় দিশার গড়ে ওঠার আগে ও পরের বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য ঘটনা।

 

 

উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন শঙ্কর মান্না

 

 

অনুষ্ঠানের স্বাগত ভাষণ রাখেন বালি নিম্ন বুনিয়াদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেবদুলাল ঘোষ
বালি নিম্ন বুনিয়াদী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রীর আবৃত্তি
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় মহিলারা
বক্তব্য রাখছেন রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের সভানেত্রী অনন্যা চক্রবর্তী
বক্তব্য রাখছেন রাজ্য মহিলা কমিশনের সভানেত্রী লীনা গঙ্গোপাধ্যায়
বক্তব্য রাখছেন রাজ্য মহিলা কমিশনের সদস্য ও চাকদহের বিধায়ক রত্না ঘোষ

 

 

বক্তব্য রাখছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক স্বাতী ভট্টাচার্য
'এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান' প্রাপক কনকনগর এস. ডি. ইন্সটিটিউশনের ফুটবল প্রশিক্ষক রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল
'এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান' প্রাপক মনীষা পৈলান
'এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান' প্রাপক কৃষ্ণা রায়
'এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান' প্রাপক মুরশিদা খাতুন
'এবং আলাপ লিঙ্গসাম্য সম্মান' প্রাপক রাঙাবেলিয়া মহিলা সমিতির পক্ষে সমিতির সম্পাদক প্রতিমা মিশ্র ও সমিতির আরও দুই সদস্যা
বালির আদিবাসী মহিলারা সঙ্গীত পরিবেশন করেন
বালির দিগ্বিজয়ী সংঘের সদস্যাদের নৃত্য পরিবেশন
নিজের লড়াইয়ের কথা শ্রোতাদের সাথে ভাগ করে নেন মনীষা পৈলান
নিজের টীমের ছাত্রীদের পাশে নিয়ে বক্তব্য রাখেন রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল
নিজের স্কুলের ছাত্রীদের জন্য প্রতিনিয়ত কীভাবে লড়াই করে চলেছেন তিনি, বলেন মুরশিদা খাতুন
বক্তব্য রাখেন কৃষ্ণা রায়

ছবি : প্রতিবেদক 

 

 

 

 

এখন আলাপ’ এ প্রকাশিত লেখাগুলির পুনঃপ্রকাশ বা যেকোনো রকম ব্যবহার (বাণিজ্যিক/অবাণিজ্যিক) অনুমতি সাপেক্ষ এবং নতুন প্রকাশের ক্ষেত্রে ‘এখন আলাপ’ এর প্রতি ঋণস্বীকার বাঞ্ছনীয়। এই ব্লগে প্রকাশিত কোনো লেখা পুনঃপ্রকাশে আগ্রহী হলে আমাদের ইমেল-এ লিখে জানান ebongalap@gmail.com ঠিকানায়।
আমরা আপনাদের মতামতকে স্বাগত জানাই। আমাদের সম্পাদকীয় নীতি অনুযায়ী মতামত প্রকাশিত হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

 


 
 

Ekhon Alap | এখন আলাপ

 

নজরে বিজ্ঞাপন : জামার ময়লা, মনের ময়লা ও ঘড়ি ডিটার্জেন্ট

মিনিটের তিনেকের বিজ্ঞাপনটি জানিয়ে দেয়, কায়িক শ্রমের উপর আমাদের দৈনন্দিন জীবন নির্ভরশীল সেই শ্রমকে মূল্য দেওয়া প্রয়োজন। চোখের আড়ালে যারা ঘড়ির কাঁটার সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের রোজকার জীবনে নানান মুশকিল আসান করে দিচ্ছে, তাদের মুখে একটু হাসি ফোটানোর দায়ও যে আমাদেরই, সেকথাও বলে। তার সঙ্গেই গৃহকর্ম যে শুধুই ‘মেয়েদের ডিপার্টমেন্ট’ নয়, সেই বার্তাটুকুও দিতে ভোলে না। তাই বিজ্ঞাপনটিতে কোথাও বাড়ির কর্ত্রীর সঙ্গে কাজের মেয়ে মিনু এক বিন্দুতে এসে দাঁড়ায়। সংক্ষেপে, গৃহকর্মে মেয়েলি কাজ কিংবা ‘ও তো যে কেউ পারে’ বলে অবহেলা করবেন না। তবে, ফলে মিনু বা তার কর্ত্রী কারুরই অবস্থানের কোনো হেরফের ঘটছে না। মিনুর আর্থ-সামাজিক অবস্থান তার জন্য ঠিক করে দিয়েছে অন্যের জন্য কায়িক শ্রম দেওয়ার ভূমিকা, তাই তাকে করে যেতে হবে। তবে খানিকটা সহমর্মিতা সে পেতেই পারে এই যা! আরও লক্ষণীয়, গোটা বিজ্ঞাপনটিতে মিনু প্রায় নীরব, তার হয়ে যুক্তিগুলো পেশ করছেন গৃহিণী স্বয়ং।

more | আরো দেখুন

 
 
 
Subscribe for updates | আপডেটের জন্য সাবস্ক্রাইব করুন


158/2A, Prince Anwar Shah Road (Ground Floor)
Kolkata - 700045
West Bengal, INDIA

contact@ebongalap.org

+91 858 287 4273

 
 
 

ekhon-alap

জেন্ডার বিষয়ে এবং আলাপ-এর ব্লগ 'এখন আলাপ'। পড়ুন, শেয়ার করুন। জমে উঠুক আড্ডা, তর্ক, আলাপ।

এখন আলাপ